আইজিপি তার যোগ্যতা হারালেন!

জাকিরের মৃত্যুর দায় থেকে মুক্তি পেতে আইজিপির হেয়ালী রাজনৈতিক বক্তব্য জনগনের কাছে গ্রহনযোগ্য নয়। জনাব আই জি পি সাহেব, এ কি কথা শুনালেন জাতিকে?? তাহলে কি জাকিরের মৃত্যুর জন্য ঢাকার জেল বা ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল কতৃপক্ষ দায়ী???
কি অদ্ভুত পরিবর্তন! কিন্তু এই পরিবর্তন দেশের আইজিপির জন্য শুভকর নয়। জাতি এরকম পরিবর্তিত চরিত্রের একজন মানুষকে আইজিপি পদে থাকার জন্য যোগ্য মনে করে না। হয়তো সরকারের কাছে এবং দেশের তাবৎ অপরাধীদের কাছে একটি পেটোয়া বাহিনীর প্রধান হিসাবে অতি প্রিয় হতে পরে কিন্তু জনগণের চোখে তিনিও খুনের সহায়তাকারী অপরাধকারী হিসাবেই বর্নিত হবেন।
আইজিপি আইনের শাসনের একটি রাষ্ট্রীয় স্তম্ভ। আইজিপির অন্যতম বা প্রধান দায়িত্বই হলো দেশে আইনের শাসন বা অপরাধ দমনের চেষ্টা দৃষ্যমান করা। হয়তো আইজিপির একার পক্ষে আইনের শাসন বা অপরাধ দমন সম্ভব না কিন্তু অপরাধীদের পক্ষ অবলম্বন করা একজন আইজিপির শুধু অনৈতিক কর্মকান্ডই নয়
শাস্তিযোগ্য অপরাধও বটে। আজকে জাতির দুর্ভাগ্য দেশের তিন তিন জন সাবেক আইজিপি খুনের মামলায় আসামী হয়ে জেল খাটছেন। জনগণ এই তালিকায় আর একটি নামও যোগ হোক তা কখনই প্রত্যাশা করে না।
কোন মানুষকে খুন করার বা খুন করতে সাহায্য করা আইন কখনই মেনে নেয় না। তারপরেও খুন হয়, সরকার সেই খুনে সরকারের কোন সহযোগিতা নাই ভাব দেখিয়ে নাটক করে, তদন্তের নামে অনেক খুনের বিচার ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে যা মানুষ বুজে। তারপরেও দেশ ও রাষ্ট্রের তথাকিথত স্বার্থ চিন্তা করে জনগণ
এক ধরনের নিরবতা পালন করে। কিন্তু এভাবে আইজিপির উদ্দেশ্য প্রনোদিত প্রকাশ্য মিথ্যাচার অনেকে বিনা প্রতিবাদে মেনে নিতে পারছে না। তাই আইজিপি সাহেবের এই হেয়ালী বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। জানি এর জন্য হয়তো আমাকে হ্যানস্থা করা হতে পারে তারপরেও নিন্দা ও ক্ষোপ জানাচ্ছি। কারন এই আইজিপি সাহেবের কাছে আমাদের প্রত্যাশা ছিল অন্যদের চেয়ে একটু বেশি। আমাদের প্রত্যাশা ছিল তিনি রাষ্ট্রের আইজিপি হবেন, কোন দল বা গোষ্টির আইজিপি নয়। তবে জনগণ এখনো নিরাশ হয় নি।

আপনি কি পড়েছেন?

পরীক্ষা ছাড়াই অভ্যন্তরীণ বিজ্ঞপ্তিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগ

ওপেন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগের কারণে যেহেতু আন্দোলন হয়েছে, তাই এখন থেকে অভ্যন্তরীণ বিজ্ঞপ্তির …